টপলাইন: নিরেট নির্মল স্বর্গীয় সম্পর্কের নামই বন্ধুত্ব, অমিত গৌরবের অম্লান দ্বীপ শিখাই বন্ধুত্ব,, অনুভবে এক অসীম আস্থার নাম বন্ধুত্ব, এভাবেই বন্ধুত্বের  অমোঘ অবগাহনে স্বীয় চিত্তকে সিক্ত করলেন বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার বেলাল হোসাইন চৌধুরী, বন্ধু ও বন্ধুত্ব নিয়ে কাব্যময়তায় ঘেরা উনার অসাধারন লিখনিটুকু  পাঠক সমীপে সবিনয়ে নিবেদন করলাম।

 

বিজে২৪ বিশেষ:

 

বন্ধু দর্শন!

জীবনে বন্ধু অনন্য সুমিষ্টজন। সৌভাগ্যবানে দর্শন। পার্থিবে অপার্থিব বন্ধন। ঐশ্বর্যের অমর অর্পণ। মহত্বে ঔদার্যে মহীয়ান। ভুবনের সবুজতম কীর্তন। জগৎময় চর্চার বেশুমার সাতকাহন।

 

 

‘বন্ধু’ উদ্দীপ্ত সুদীপ্ত সুজন। অফলাইন-অনলাইনের পরীক্ষিত স্বজন। ফেসবুক, সামাজিক মাধ্যমের রবাহুত, অনাহুত, হৃত, ভীত কেউ নন। যে বন্ধুত্বে নেই ‘অবন্ধু’ ‘দূরে থাক’ ‘লাইক’ ‘আনলাইক’ সীমিত’ ‘ব্লক’ খাওয়ার ডর, ভয় অপমান। খাঁটি বন্ধু সৌরভে গৌরবে ঋদ্ধ মহাভাগ্যবান। অসীমে অর্জিত অনায়াসে আদৃত অনন্য অনুপম অমিতজন।

 

‘বন্ধুত্ব’ নিরেট নির্মল স্বর্গীয় সম্পর্কের নাম। হৃদয়বৃত্তির, বিশ্বাসের, শেয়ারের, কেয়ারের, পেয়ারের অন্য নাম! বর্ণহীন ভেতরে বন্ধু বর্ণিল বিনোদনের ভেলায়! রঙ বদলে হাসায়, ভাসায়, ভোলায়, সাজায়, জাগায়! ব্যক্তি, বয়স, গোষ্ঠী ও সামাজিক সম্পর্কসীমায় সংজ্ঞায় আবদ্ধ করা কঠিন।

 

শত উপেক্ষায়ও বয়ে যাওয়া’ কিছু বন্ধুত্ব!

যেমন বিসিএস পঞ্চদশীর। অবিচ্ছেদ্য, আত্মিক, অটুট পরম ভাগ্যবান। তেইশ বছরেও অদেখা, অচেনা, নামশোনা বছরে একদর্শনের প্রিয়জন। তবু আত্মায় অতি আপন। জীবনের অদেখা এ পঞ্চাশবর্ষী বন্ধুকে অকপটে ‘তুমি’ বলে পাঁজরে বাঁধার অনন্যজন। বিরল সরল অকৃপণ বন্ধুত্বে ঋদ্ধ প্রকৃত নিকটজন। পঞ্চদশ বিসিএস ফোরামের অর্জন অচ্ছেদ্য মেলবন্ধন।

 

একদল মেধাবীর চব্বিশ বছর পূর্বের পরম আয়াসলব্ধ অর্জন। সহশ্রাধিক পঞ্চদশীর পঁচানব্বইয়ের নভেম্বর পঞ্চদশ দিবসে কর্মে যোগদান। সেই থেকে সহযাত্রী এক তরণীতে আমরা প্রবাহমান। সুখে দুখে পেয়ে হারিয়ে কেটে গেছেন তেইশ বসন্তের আবাহন।

 

চব্বিশেও পঞ্চদশীর পূর্ণযৌবনা অলৌকিক বন্ধন। নি:স্বার্থ নির্বিবাদ হৃদ্যতা বহতা নদীর মতো বহমান। যশ, খ্যাতি, প্রাপ্তির শতদলনেও অটুট অম্রিয়মান। আমাদের যত্নে অযত্নের পঞ্চদশীর বলিষ্ঠ আলিঙ্গন। গত বৃহস্পতিবার পুলিশ কনভেনশন হলে আবারো স্বত:স্ফূর্তে মহামিলন।

 

সম্প্রদানের বন্ধুত্ব!

মিলনমেলার মহাধুমধাম। বন্ধুদর্শনের আনন্দ অসীম। এ মিলন আবারো বার্তা দিল বন্ধুত্ব আসলে কী! বন্ধুত্ব, অমিত গৌরবের অম্লান দীপশিখা। পৃথিবীর বিস্ময়কর ও আদৃত বর্ণিল এক সম্পর্ক। কোন গবেষণা, চেষ্টা, আহাজারি, বাঁচার আকুতি ছাড়াই টিকে আছে নিরন্তর। প্রকৃত বন্ধুত্বের অমোঘ সম্প্রদানে মানুষের পৃথিবী ধন্য অনন্তর।

 

          বন্ধুদের সাথে সেলফি নিচ্ছেন বেলাল চৌধুরী

 

পৃথিবী আবাদে বন্ধুত্বের অসমান্য অবদান।

রবীন্দ্রনাথ বন্ধু আচার্য জগদীশ বসুকে আর্থিক সাহায্য করেছিলেন। বিজ্ঞান গবেষণার জন্য। জগদীশ বসু তাঁকে বিজ্ঞানে আগ্রহী করেছেন। কেবলই বন্ধুত্বের তরে। রবীন্দ্রনাথের বিজ্ঞানময় লেখাগুলো তাঁর প্রভাবেই।

 

আপন প্রকৃতি ও মতাদর্শের সাথে মিলে এমন কারো সাথে বন্ধুত্ব হয়। বন্ধুত্বে নাবলে কয়েও হয়। হঠাৎও ঘটে যায়। বাসে, ট্রেনে, বিমানে, জীবনে, মরণে বা মহারণে! বন্ধুত্বের উৎসে দৃশ্যমান নানা রকমফেরও। স্কুলগুলো পৃথিবীময় বন্ধুত্বের সুতিকাগার। এক ঘরে বাস করে বন্ধুত্ব হয়। সমবয়সী আত্মীয়ের মধ্যে যেমন।

 

একই বাড়ি, পাড়া, কলেজ, বিশ্বিদ্যালয়, বাবার চাকরির জন্য! একই শখ, পছন্দ, লক্ষ্য, খেলা, পেশা বা ব্যবসার জন্য বা কোন ব্যাখ্যাতীত কারণে। বন্ধুত্ব আসে, যায়, থেকে যায়, রেশ রেখে যায়।

 

বন্ধুত্ব দর্শন!

বন্ধুত্বে এরিস্টটলের নিখাত দর্শন
“প্রত্যেক নতুন জিনিসকেই উৎকৃষ্ট মনে হয়। কিন্তু, বন্ধুত্ব যতই পুরাতন হয়, ততই উৎকৃষ্ট ও দৃঢ় হয়।”

জ্যাক দেলিল হৃদয়গ্রাহী করে বলেছেন “নিয়তি তোমার আত্মীয় বেছে দেয়, আর তুমি বেছে নাও তোমার বন্ধু।”

 

জীবনানন্দ দাশের বিখ্যাত উক্তি
“যদি থাকে বন্ধু মন গাং পার হইতে কতক্ষণ।”

 

বন্ধু নিয়ে চার্লি চ্যাপলিনের কঠিন সংলাপ
“আমার সব থেকে ভালো বন্ধু হল আয়না, কারণ আমি যখন কাঁদি তখন সে হাঁসে না”

 

রবার্ট লুই স্টিভেন্স জীবনের অর্থ খুঁজতে গিয়ে বলেছেন “কোন মানুষই অপ্রয়োজনীয় নয় যতক্ষণ তার একটি বন্ধু আছে।”

বন্ধুত্বের অপরিহার্যতায় আরেক মনীষী বলেন,
“সেই সফল যার জীবনে তিন থেকে চার জন সত্যিকারের ভাল বন্ধু আছে।

 

            বিসিএস পঞ্চদশী অনুষ্ঠানের একটি অংশ।

মনে পড়ে, ১৯৯৫ এর ১৫ নভেম্বর এক শুভক্ষণ। পঞ্চদশ বিসিএসের সাড়ে বারশ কর্মকর্তার চাকরিতে যোগদান। সেদিন জন্ম হয় অটুট ভীতের এ চক্রবন্ধন। বছরে একবার দেখা। কাউকে জীবনে প্রথম দেখা। এবারো এক ডজন সনাক্ত করলাম। আনন্দ বিনোদনের এক মহতি সন্ধ্যা কাটলো দেখা, অদেখা, হঠাৎ দেখা বন্ধুদের সাথে।

 

আবারো বন্ধু! অনুভবে এক অসীম আস্থার নাম। নন্দিত বন্ধুত্বে ভাগ্যবান আমরা একদল। একইদিনে শুরু যাদের কর্মজীবন। আপনের চেয়েও আপন। সময়ের বেঁধে দেয়া ‘সম্পর্ক’ অন্যরকম!

 

‘বন্ধু-মিলন’ আয়োজক মনিরুল, খায়রুল, বেলাল, লাবলু, তালুকদার, হাবীবুল, ইউসুফ, মোয়াজ্জেমসহ সম্পৃক্তদের ও অংশগ্রহণকারী সকল বন্ধুকে সকৃতজ্ঞ সাধুবাদ। রাষ্ট্রদূতসহ অনেককে হারিয়ে খুঁজেছি। পুনরাবৃত্ত হোক এমন আয়োজন, প্রিয় বিনোদন। জনাকীর্ণ হোক আমাদের ভূবন।

 

বন্ধুত্বে আশা জেগে থাকুন। জীবননান্দের মতো ‘বন্ধু মন’ হাত বাড়িয়ে বলুক ‘সমুদ্র পাড়ি দেবে? আমি আছি বন্ধু’! বাতিঘর হয়ে। আঁধার পথের পাথেয় হয়ে। আলোর দিশারী হয়ে। উদ্বুদ্ধ অবলম্বন হয়ে। জগতের সকল বন্ধুত্ব এমনি করে সমাদৃত সম্মানিত হয়ে বেঁচে থাকুক।

 

(পঞ্চদশ বিসিএস ব্যাচের সকল বন্ধুকে নিবেদিত! বিলম্ব মার্জনীয়)