মালিকের আশায় ৩০ বছর ধরে খেলনার যত্ন নিচ্ছে এই জাদুঘর

 

 

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

 

 

প্রায় ৩০ বছর আগে জাপানের সুরুকা শহরের চিডো জাদুঘরে একটি খেলনা রেখে যান এক ব্যক্তি। এরপর থেকে ওই খেলনাটির যত্ন নিচ্ছে জাদুঘর কর্তৃপক্ষ। তাদের বিশ্বাস, কোনও এক সময় নিশ্চয়ই খেলনাটি নিতে আসবে এর মালিক।শুক্রবার নিজেদের টুইটার পেজে এক টুইটে খেলনাটির কয়েকটি ছবি পোস্ট করে জাদুঘর কর্তৃপক্ষ।

 

 

এতে দেখা যায়, এই খেলনাটি মূলত ডোনাল্ড ডাক আকৃতির খেলনা। ডোনাল্ড ডাক হলো কার্টুনের একটি চরিত্র যা ১৯৩৪ সালে তৈরি হয়। এ ধরনের খেলনা অনেকেই বেশ পছন্দ করেন।সিঙ্গাপুরভিত্তিক গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান চ্যানেল নিউজএশিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ৩০ বছর আগে জাদুঘরটির পার্কিংয়ের স্থানে এই খেলনা পাওয়া যায়। এরপর থেকে সেখানকার কর্মীরা এটাকে সবসময়ই তাদের ডেস্কে রাখেন। খেলনাটি ময়লা হয়ে গেলে সেটা পরিষ্কারও করেন কর্মীরা। এমনকি তাতে নতুন কাপড়ও পরানো হয়।

 

 

খেলনাটি সংরক্ষণ ও যত্ন নেয়ার ক্ষেত্রে জাপানের চিডো জাদুঘরের এই পদক্ষেপ সবার কাছে প্রচার করছে টুইটার ব্যবহারকারীরা। এক গ্রাহক বলেছেন, খেলনাটিকে সঙ্গ দেয়ার জন্য ডিজনিল্যান্ড থেকে অন্য আরেকটি কার্টুন চরিত্রের খেলনা ‘ডেইজি ডাক’ সংগ্রহ করতে চেয়েছিলেন তিনি। এছাড়া আরও অনেক ব্যবহারকারী জাদুঘর কর্তৃপক্ষের দেয়া টুইটার পোস্ট শেয়ার করেছেন এবং খেলনা সম্পর্কিত ছোটবেলার স্মৃতি রোমন্থন করেছেন।চিডো জাদুঘর মূলত সামুরাই সম্পর্কিত একটি সংগ্রহশালা যেখানে অসংখ্য হেলমেট এবং তলোয়ার সংগৃহীত আছে। এই জাদুঘর কর্তৃপক্ষ বলছে, তাদের টুইট এতো আলোচিত হবে এটা তারা ভাবেনি। একই সঙ্গে তারা আশা প্রকাশ করেছে, টুইট আলোচিত হওয়ায় হয়তো খেলনাটির মালিককে খুঁজে পাওয়া যাবে।