পাঁচ মাস পর ঢাকায় খোঁজ মিলল জাহাঙ্গীর হোসেন বাবলু নামে এক ইতালি প্রবাসীর।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গত ৬ জানুয়ারি ২৭ বছর বয়সী বাবলু নিখোঁজ হন।

তার পরিবার তাকে হারিয়ে ব্যাকুল হয়ে পড়ে। তার পর প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়ে থানায় জিডিসহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

বৃহস্পতিবার ভোরে চোখ বাঁধা অবস্থায় কিছু লোক রাজধানীর একটি গাড়ি থেকে তাকে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। এর পর চোখ খুলে বাবলু দেখে তিনি ঢাকায় আছেন।

অপহরণের হাত থেকে ফিরে আসা বাবলু মৌলবীবাজার জেলা জুড়ি উপজেলার বাসিন্দা।

ইতালি প্রবাসী জালালাবাদ কল্যান সংঘের সভাপতি অলি উদ্দীন শামীম বলেন, ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বাবলুকে চোখ বেঁধে একটি গাড়িতে তুলে নেয়ার পর তাকে একটি অন্ধকার ঘরে রাখা হয়। দীর্ঘ কয়েক মাস নিখোঁজ হওয়ার পর বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় ভোরে ঢাকায় তাকে কয়েকজন লোক চোখ বেঁধে কোনো একটি রাস্তায় ফেলে চলে যায়।

কীভাবে এমন হল তা জানতে চাওয়া হলে গত ৫ মাস পর ফেরত আসা বাবলু কিছুই বলতে পারছেন না বলে শামীম জানান।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছাড়া কোনো মালামাল ফেরত দেয়নি অপহরণকারীরা।

বিয়ে করতে ঢাকায় এসে নিখোঁজ হন এ প্রবাসী যুবক:

ইতালির ভেনিসে থেকে বিয়ে করার উদ্দেশ্যে প্রায় ৬-৭ বছর পর ঢাকায় এসে জাহাঙ্গীর হোসেন (২৭) নামে এক ইতালিপ্রবাসী যুবক নিখোঁজ হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ৬ জানুয়ারি ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পর নিখোঁজ হন।

জানা যায়, গত ৫ জানুয়ারি ইতালির ভেনিস থেকে এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি বিমানে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন ওই যুবক। এরপর ৬ জানুয়ারি ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পর নিখোঁজ হন।

এ বিষয়ে সোমবার রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তাঁর স্বজনরা।

নিখোঁজ জাহাঙ্গীর মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা সদরের উত্তর ভবানীপুর এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী আবদুল হাছিবের ছেলে।