আপন ভাগিনার হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন মামা, মূমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করানো হয়েছে মামাকে।

 

বিজে২৪নিউজ:

 

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ থানার ১৫নং শরীফপুর ইউনিয়নের দঃশরীফপুর গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

 

রবিবার ব্যাপারী বাড়ীর সামনে পারিবারিক কলহের জের ধরে মামা নাজিম উদ্দিন (২৬) এর সাথে বাগিনা ফয়সাল (২২) এর কথা কাটাকাটি হয়, কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বাগিনা ফয়সাল উত্তেজিত হয়ে তার বন্ধুদের নিয়ে মামা নাজিম-কে হকিস্টিক দিয়ে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে এক পর্যায়ে নাজিম অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা নাজিম কে উদ্ধার করে মাইজদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করান,

 

কিন্তু প্রতি মুহুর্তে নাজিমের শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে তাকে  মাইজদি সদর হাসপাতাল থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়, বর্তমানে নাজিম উদ্দিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন,

 

এই বিষয়ে বিবিসি জার্নাল টোয়েন্টিফোর ডটকম  এর সাথে কথা হয় বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে তিনি নাজিমের বর্তমান শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বলেন, ওর মাথায় খুব বড় ধরনের আঘাত লেগেছে, ইতোমধ্যে তার অঙ্গহানিও হয়েছে, আমরা এখনো কিছুই বলতে পারছিনা, তবে চিকিৎসা চলছে।

 

নাজিমের বড় ভাই ফজর আলী কিরণ  বিবিসি জার্নাল টোয়েন্টিফোর ডটকম-কে মুঠো ফোনে জানান , মহান আল্লাহর কাছে আমার একটাই প্রার্থনা, আমি আমার ভাইকে যেন আবারো সুস্থ জীবনে ফিরে পাই, তার সাথে আমি এই অন্যায়ের সুষ্ঠু বিচার চাই, আইনি ভাবে মোকাবেলার জন্য বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান ডাক্তার কিরন। উল্লেখ্য নাজিমের বড় ভাই ফজর আলী কিরণ পেশায় একজন পল্লী চিকিৎসক।

 

বিজ্ঞাপন অংশ