নোয়াখালী জেলা আ.লীগের সম্মেলনে মেয়র সহেলকে সাধারন সম্পাদক হিসেবে দেখতে চায় নোয়াখালীবাসী।

 

বিজে২৪নিউজ:

 

আসন্ন নোয়াখালী জেলা আ.লীগের সম্মেলনে নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র সহিদ উল্যা খান সোহেলকে সাধারন সম্পাদক হিসেবে দেখতে চায় নোয়াখালীর আওয়ামী পরিবারের সদস্য সহ সর্বস্তরের মানুষ ।

 

আগামী কাউন্সিলে নোয়াখালী শহর আ’লীগের সফল ও জনপ্রিয় সাধারণ সম্পাদক শহীদ উল্যাহ খান সোহেল জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক হচ্ছেন বলে মনে করেন আ.লীগসহ সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দ,কর্মী ও সমর্থকরা।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই বিবিসি জার্নালকে জানান, শহীদুল্লাহ খান সোহেল-কে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে দেখতে তৃণমূল নেতাকর্মীদের চাওয়া পাওয়া দীর্ঘ দিনের। তারা মনে করছেন শহীদুল্লাহ খান সোহেল সাধারণ সম্পাদক হলে দলের সাংগঠনিক ভীত আরো সুদৃঢ় ও শক্তিশালী হবে।

 

এদিকে নোয়াখালী জেলা আ’লীগের অনেক নেতৃবৃন্দ ও নোয়াখালী পৌরসভার সাধারন মানুষ বিবিসি জার্নাল টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরনে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন শহীদ উল্যাহ খান সোহেল। তার পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছা শক্তি, একাগ্রতা এবং প্রতিভা সবই রয়েছে। সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য সর্বোপরি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন এই মানুষটি।

 

তার এ পরিশ্রমের পুরষ্কার হিসেবে আগামী কাউন্সিলে সে দলের মূল দায়িত্ব পেতে পারে বিশ্বাস করেন নোয়াখালী আ.লীগ পরিবার।

 

আবার অনেকেই মনে করছেন, তারুণ্যের প্রতীক এ তরুণ তাঁর বয়স ও অভিজ্ঞতা দুটিকেই হার মানিয়েছেন। তাঁর কর্মকান্ডে মনে হয় তিনি অনেক প্রবীণ। কিন্তু দল পরিচালনায় তাঁর অভিজ্ঞতা ও বিচক্ষনতা ঈর্ষনীয়।

 

পৌর মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে তিনি উন্নয়ন কর্মকান্ডে অগ্রনী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। সদর পৌরসভার উন্নয়নে তার নিরন্তর প্রয়াস সব মহলে প্রশংসা কুড়িয়েছে বলেও তারা মনে করেন। রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান এবং সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে সোহেল এলাকার মুখ উজ্জল করেছেন। তার ব্যক্তিগত সফলতা ও সুনামের সাথে দলের ভাবমূর্তিও বৃদ্ধি পেয়েছে।

ব্যক্তি জীবনে অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদা হাস্যোজ্বল মানুষটি দলের সাধারণ সম্পাদক হলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলের সধারণ সম্পাদক হলে দলের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও উপকৃত হবে। এমনই প্রত্যাশা সকলের।

 

নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি খায়রুল আলম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক নোয়াখালী-৪ আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী। কিন্তু আগামী কাউন্সিলে কে হচ্ছেন সাধারণ সম্পাদক এ নিয়ে আলোচনা সমালোচনাসহ নোয়াখালীবাসীর মধ্যে জল্পনা কল্পনার ও শেষ নেই।

 

Comming Soon