ডিআরইউর প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হলেন আরটিভির রুবেল

 

বিজে২৪নিউজঃ

 

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন আরটিভির সিনিয়র রিপোর্টার মাইদুর রহমান রুবেল। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আবদুল হাই তুহিনকে ৭৫ ভোটে হারিয়ে তিনি ৬৪৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

রুবেলের এই বিজয়ে অভিনন্দন জানিয়েছে বিবিসি জার্নাল টোয়েন্টিফোর ডটকম পরিবার। বিজয়ের বার্তা নিয়ে রুবেল আরটিভির কার্যালয়ে পৌছালে এক আনন্দঘন পরিবেশ তৈরি হয়।এসময় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান আরটিভি পরিবার, ডেপুটি হেড অব নিউজ মামুনুর রহমান খান, প্রধান বার্তা সম্পাদক লুৎফর রহমান শিকদার।

 

এবার ২০২০ মেয়াদের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন রফিকুল ইসলাম আজাদ ও সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী। কার্যনির্বাহী পরিষদের মোট ২১টি পদে প্রার্থীরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।শনিবার সকাল ৯টা থেকে কার্যনির্বাহী কমিটির এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়, যা বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে।

 

নির্বাচনে সভাপতি পদে প্রার্থী ছিলেন রফিকুল ইসলাম আজাদ, রাজু আহমেদ, শাহনেওয়াজ দুলাল, শামসুল হক বসুনিয়া ও শরিফুল ইসলাম (বিলু)। তবে রাজু আহমেদ মনোনয়পত্র প্রত্যাহারের সময় শেষ হওয়ার পর ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।অপর বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন সহসভাপতি পদে নজরুল কবীর, যুগ্ম-সম্পাদক হেলিমুল আলম বিপ্লব, সাংগঠনিক সম্পাদক হাবীবুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক মো. জাফর ইকবাল, তথ্য প্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সুমন, ক্রীড়া সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মিজান চৌধুরী।

 

নির্বাচিত নির্বাহী সদস্যরা হলেন- মঈনুল আহসান, এসএম মিজান, আহমেদ মুশফিকা নাজনীন, কামরুজ্জামান বাবলু, মো. ইমরান হাসান মজুমদার, এম মুরাদ হোসেন ও সায়ীদ আবদুল মালিক।এছাড়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন অর্থ সম্পাদক জিয়াউল হক সবুজ, নারী বিষয়ক সম্পাদক রীতা নাহার, আপ্যায়ন সম্পাদক এইচএম আকতার ও কল্যাণ সম্পাদক খালিদ সাইফুল্লাহ।বিজয়ের পর প্রতিক্রিয়ায় মাইদুর রহমান রুবেল  বিবিসি জার্নাল টোয়েন্টিফোর ডটকম অনলাইনকে বলেন, ভোটারদের ভালোবাসায় আমি আপ্লুত। যারা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। যে দায়িত্ব আমাকে দিয়েছেন ভোটাররা তাদের মর্যাদা যাতে রাখতে পারি, সেই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

 

ডিআরইউর প্রকাশনা গতিশীল করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। নিয়মিত রিপোর্টার্স ভয়েজ প্রকাশ করার পাশাপাশি নতুন লেখক সৃষ্টিতে কাজ করবো। লেখকদের বিশেষভাবে মূল্যায়িত করার চেষ্টা করবো। লেখকদের সম্মানিত করতে উদ্যোগ নেব। একুশে বইমেলায় স্টল নেয়া হবে। দেয়া হবে লেখক সম্মাননা।