নোয়াখালীতে বেতন ও গ্রেড পরিবর্তনের দাবিতে বাকাসস এর তিনদিনের কর্মবিরতি

বিজে২৪ডটকমঃ

বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাঁই নাই“প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশ বৈষ্যম্যের দিন শেষ” এই স্লোগানে

৩য় শ্রেনীর কর্মচারীদের বেতন ও গ্রেড পরিবর্তনের দাবিতে তিনদিনের পূর্ন কর্মবিরতি পালন করেছেন বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারী সমিতি (বাকাসস)।

আজ বিকেল  ৩ঘটিকার সময় নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মাঠ প্রশাসনে বিভাগীয় কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় ও সহকারী কমিশনার ভুমি এর কার্যালয়ে কর্মরত ৩য় শ্রেনীর কর্মচারীদের বেতন ও গ্রেড পরিবর্তনের দাবিতে বাকাসস কর্তৃক পূর্বঘোষিত পূর্ণ কর্মদিবস কর্মবিরতি পালন করা হয়।

এ সময় আন্দোলনকারীরা বিভিন্ন স্লোগানে মূখরিত করে তোলে জেলা প্রশাসক এর কার্যালয় প্রাঙ্গন।

নোয়াখালী জেলার সকল উপজেলার কর্মচারীগণ জেলাপ্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়ে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি কর্মসূচীতে অংশ গ্রহণ করেন। এ সময় বক্তারা বলেন- চাকুরী জীবনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একই পদে কাজ করছেন মাঠ প্রশাসনের এমন হাজার হাজার কর্মচারী। বঞ্চনা আর কষ্ট নিয়ে অনেকে যাচ্ছে অবসরে আবার অনেকে যাচ্ছে পরপারে। এই বৈষম্যের অবসান চেয়ে দীর্ঘদিন ধরে নানাভাবে আন্দোলন করছেন তারা। পদবী ও গ্রেড পরিবর্তনের জন্য তারা উর্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছেন বহুবার কিন্তু কোনো লাভ হয়নি।


এ বিষয়ে বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারী সমিতি (বাকাসস) নোয়াখালী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম বলেন- কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক ২৫ শে ফেব্রুয়ারি থেকে আগামী ২৭ ফেব্রয়ারি পর্যন্ত ৩ দিনের পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করবো আমরা।


অন্যদিকে বিষয়টিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ সেবাগ্রহীতারা। জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও উপজেলা পর্যায়ের সকল ধরনের কোর্ট পরিচালনা বন্ধ রয়েছে। ফলে ব্যাহত হচ্ছে সরকারি নানা কর্মকান্ড।

দাবি আদায়ের এই আন্দোলনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারী সমিতি (বাকাসস) এর সভাপতি মোঃ বেলায়েত হোসেন, সহ-সভাপতি নারায়ন চন্দ্র দে, মোঃ ইউছুপ, সাধারন সম্পাদক মোঃ আবদুর রহিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রিয়াজ উদ্দিন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আবদুল মুকিত প্রমূখ।

দেখুন আন্দোলনের ভিডিও চিএটি