বিজে২৪নিউজ:

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুব আলম’র বিভিন্ন দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন, নোয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারস সম্পাদক মামুনুর রশিদ কিরন।


বুধবার (১৮ মার্চ) উপজেলা পরিষদের নিজ কার্যালয়ে তিনি এ সংবাদ সম্মেলন করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি ডা. এবিএম জাফর উল্যা।


সংবাদ সম্মেলনে সংসদ সদস্য সুনিদিষ্ট অভিযোগ এনে বলেন, ইউএনও ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে ৫ জন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান থেকে ২৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেন। উপজেলার ১৯৪টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিম্নমানের বায়োমেট্রিক মেশিন ৮ হাজার টাকার স্থলে ১৭ হাজার ৫০০শত টাকা নিয়ে অতিরিক্ত টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

হাটবাজার ও জলাশয়ের ইজারার টাকা তার সিএ জাহের’র যোগসাজসে সরকারী কোষাগারে জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেছেন। মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে ৫ হাজার টাকা এবং এসএসসি/দাখিল,জেএসসি/জেডিসি, পিএসসি/এবতেদায়ী পরীক্ষার প্রতিটি কেন্দ্র থেকে বাধ্যতামূলক ১৫ হাজার টাকা করে উৎকোচ গ্রহন করেন।

গৃহহীনদের জন্য সরকারী অর্থে গৃহ নির্মানে অনিয়মসহ বিভিন্নক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরে তাকে দ্রুত বদলি ও দুর্নীতির বিচার দাবী করেন জনপ্রিয় এই সাংসদ সহ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা.এ.বিিএম জাফর উল্যাহ।


এসময় সাংসদ কিরন আরও বলেন, দুর্নীতিবাজ ইউএনও অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিলসহ বিভিন্ন কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। আজকের মধ্যে কোন ব্যবস্থা না নিলে আগামীকাল আবার উপজেলা চত্ত্বরে মানববন্ধন করবে উপজেলা আওয়ামীলীগ। উল্লেখ্য, গত সোমবার একই দাবীতে উপজেলা চত্ত্বরে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল করা হয়।


এ বিষয়ে বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুব আলম’র ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি দাবি করেন, তার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ মিথ্য ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত । তবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সংসদ সদস্যের অভিযোগ গুলোকে চ্যালেঞ্জ করতে রাজি হননি। বিশেষ ভাবে উল্লেখ্য বেগমগঞ্জের ১৬ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগন ইউএনওর বিভিন্ন অনিয়ম এর কারনে ইতোমধ্যে লিখিত ভাবে তার ডাকা মাসিক আইন শৃখ্ঙলার কমিটির সভাকে বয়কট করেছে বলেও দাবি করেন সংসদ সদস্য।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ মার্চ উক্ত ইউএনওর বিরুদ্ধে উপজেলা কার্যালয় ঘেরাও করে মানববন্ধন, জুতা ও ঝাড়ু মিছিল করেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের শত শত নেতা-কর্মীরা।