সাংবাদিক মুজাক্কিরের খুনিদের ফাঁসির দাবিতে নিরাপদ নোয়াখালী চাই এর বিক্ষোভ

বিজে২৪নিউজ:

নোয়াখালীতে পৌরমেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের একাংশের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের খুনিদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমুলত শাস্তির দাবিতে একযোগে রাজধানী ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাব ও নোয়াখালী ডিসি অফিসের সামনে মানবন্ধন কর্মসূচি,কালোব্যাজ ধারন ও বিক্ষোভ পালন করেছেন বৃহত্তর নোয়াখালীর জনপ্রিয় সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী অরাজনৈতিক সংগঠন “নিরাপদ নোয়াখালী চাই”।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী এই কর্মসূচিতে সামাজিক এই সংগঠনের সাথে সাংবাদিক,স্থানীয় আইনজীবী, মানবাধিকারকর্মী, উন্নয়নকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিরাও অংশ নিয়ে সংহতি প্রকাশ করেন।

মানবন্ধন কর্মসূচিতে প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে  সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাইফুর রহমান রাসেল বলেন, বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকার তারুণ্যদীপ্ত সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির কে নির্বিচারে গুলি করে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের স্থানীয় সিসিটিভি ফুটেজ নিবিড় পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে মূল আসামীদের শনাক্ত করে গ্রেফতারের মাধ্যমে অনতিবিলম্বে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় না আনলে ঘেরাও কর্মসূচীসহ রাজপথ অবরোধ করা হবে।

খুনিদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচীতে আরোও  বক্তব্য দেন ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি আবু নাসের মঞ্জু ,নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক জামাল হোসেন বিষাদ, নোয়াখালী সাংবাদিক ইউনিটির সভাপতি মাসুদ রানা, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক মাহবুবুর রহমান,মাইটিভির জেলা প্রতিনিধি আবুল হাসনাত বাবুল, ফটোসাংবাদিক জয় ভুইয়া,রিপন মজুমদার,আবু নাসের, সংগঠনের সদস্য রাকিবুল ইসলাম,সিনবাদ শাকিল, ছাত্রনেতা নাইম উদ্দিন রাসেল প্রমূখ।

অপরদিকে, শুক্রবার বিকেলে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট পূর্ববাজারে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার সঙ্গে সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের অনুসারীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির গুলিবিদ্ধ হন। শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

একই দাবিতে জেলার বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন সাংবাদিকরা।