সোনারগাঁও থেকে মো:শাহাদাৎ হোসেন :

 

সোনারগাঁও উপজেলার মোগড়া পাড়া ইউনিয়নের গোহাট্রা গ্রামের আব্দুর রশিদের স্ত্রী বিউটি বেগম (৪৫) পাশ্ববর্তী এক গৃহবধু-কে নিয়ে দোকানে যাওয়ার কথা বলে হাজী মোতালেব মিয়ার বাড়ীর একটি কক্ষে কৌশলে ঢুকিয়ে দিয়ে বাহির থেকে দরজা বন্ধ করে দিলে সে কক্ষে আগে থেকে উপস্থিত ইউসুফ গঞ্জ গ্রামের নারায়ণ চন্দ্রের ছেলে মহাদেব ও সুশিল চন্দ্র দাসের ছেলে রনজিৎ জোরপূর্বক  গৃহবধু-কে পালাক্রমে ধর্ষন করে।

গৃহবধুর স্বামী অভিযোগে উল্লেখ করেন, গত রোববার সন্ধ্যায় বিউটি বেগম আমার সামনে থেকে তার স্ত্রীকে দোকানে যাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে নিয়ে যায়,  আধ ঘন্টার মধ্যে ফিরে না আসায় দোকানে খোজ নিয়ে জানে সে এখানে আসেনি।

অনেকক্ষণ পরে গৃহবধু বাড়ী ফিরে এসে কান্নাকাটি করে জানায় বিউটি তাকে দোকানে না নিয়ে হাজী মোতালেব মিয়ার বাড়ীর একটি কক্ষে নিয়ে গিয়ে বাহির থেকে দরজা বন্ধ করে দিলে অভিযুক্ত দুজন তাকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে।

এই মর্মে ধর্ষিতার স্বামী থানায় অভিযোগ করলে সোমবার রাতে উল্লেখিত ধর্ষক মহাদেব, রনজিৎ এবং সহযোগী বিউটি বেগম-কে আটক করে পুলিশ।

এই বিষয়ে বিবিসি জার্নাল টোয়েন্টিফেোর  এর প্রতিনিধির সাথে কথা হয়  সোনারগাঁও থানার ওসি মোরশেদ আলম পিপিএম এর সাথে তিনি জানান – ধর্ষিতাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, তাছাড়া আসামীদের গ্রেফতার করে   আদালতে পাঠানো  হয়েছে, অভিযোগ সত্যি হলে তারা শাস্তি  পাবে  ।