বিজে২৪ নিউজ :

জাতীয় দলের খেলোয়াড় লিটন দাসের ফেসবুক পেজে পূজার শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি পোস্ট দেওয়ার পর সেটিতে সাম্প্রদায়িক মন্তব্য ও গালাগালের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। যারা সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে এ ধরনের কাজ করে তারা বিকৃতমনা।

সরকার এ ধরনের উগ্রবাদের বিরুদ্ধেই কাজ করছে। এসব নোংরামি যেন না হয়, সেই জন্যই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন করা হয়েছে।আজ বুধবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে  সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিক তৌফিক ইমরোজ খালিদি প্রশ্ন করেছিলেন, সম্প্রতি জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় লিটন দাস ফেসবুকে দেবী দুর্গার ছবি দিয়ে সবাইকে শারদীয় দুর্গা পূজার শুভেচ্ছা জানান।

পরে সেই ছবিতে গালাগালিসহ প্রচুর নেতিবাচক মন্তব্য পড়ে। এগুলো মোকাবিলার জন্য কী পরামর্শ দেবেন? প্রধানমন্ত্রী বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন নোংরামি গোটা বিশ্বের জন্যই বড় ধরনের সমস্যা হিসেবে দেখা দিয়েছে। পারিবারিক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। নানা ধরনের ক্রাইমসহ অনেক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

সেজন্য সবাই প্রচণ্ড উদ্বিগ্ন।তিনি আরও বলেন, আমি তখন জাতিসংঘের অধিবেশনে ব্যস্ত ছিলাম। আমি ফেসবুক ব্যবহার করি না। কিন্তু, তখন এ কথা শুনেছি।

মাঝে মাঝে ফেসবুকে এসব চলছে তা আমাকে দেখানো হয়েছে। আমি দেখেছি। দেখে ব্যথিত হয়েছি। সেই ছেলেটা (লিটন দাস) চমৎকার খেলেছে। তারপরও কেন ছেলেটাকে গালি দেয়া হলো।প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের সাংবাদিকরা এসব ঘটনা মোকাবিলায় ভূমিকা রাখবে বলে আমরা আশা করি।