কাঁদলেন নানক, কাঁদালেন ভক্ত ও নেতাকর্মীদের।

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৩ (মোহাম্মদপুর-আদাবর) আসন থেকে মনোনয়ন না পাওয়ায় আবেগে আপ্লুত হয়ে কাঁদলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

 

সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মোহাম্মদপু‌রে সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে এক বিশেষ বর্ধিত সভায় বক্তব্য দি‌তে গি‌য়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। এসময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও কান্নায় ভেঙে পড়েন।

 

আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সকল দ্বন্দ্ব ও সংঘাতকে ছাপিয়ে ও ভেদাভেদ ভুলে নৌকার পক্ষে কাজ করতে এই সভা হয়। এই আসনে নৌকা থেকে এবার মনোনীত প্রার্থী সাদেক খান।নানক বলেন, নৌকার বিজয় নিশ্চিতে মাঠে থাকতে হবে। তিনি প্রতিশ্রুতি দেন মাঠে থাকার।

 

একইসঙ্গে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মোহাম্মদপুর-আদাবরের মানুষের পাশে থাকবেন বলে ঘোষণা দেন তিনি।কান্না বিজড়িত কণ্ঠে নানক বলেন, আমি যে দিন থেকে এই এলাকা নৌকা তুলে নিয়েছি, সেই দিন থেকে নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করে গিয়েছি।

 

আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা এবার নৌকা  তুলে দিয়েছেন  মোহাম্মদপুর-আদাবরের জন মানুষের নেতা সাদেক খানের হাতে। তাই সব ভেদাভেদ ভুলে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।গনতন্ত্রের মানস কন্যা,বঙ্গ জননী শেখ হাসিনার নৌকা-কে আমাদের  জয়ী করতে হবে।

 

আমি সব সময় নৌকা মার্কার জয় চেয়েছি,শেখ হাসিনার জয় চেয়েছি,আমাকে আমার প্রানপ্রিয় নেত্রী মনোনয়ন না দিলেও আমি নৌকার জয়ের জন্য আপনাদের সবাইকে নিয়ে মাঠে থাকবো এবং  নৌকাকে জয়ী করে আমার মাতৃময়ী নেত্রী কে এই আসনটি উপহার দিবো ইনশাআল্লাহ্।