অপহরণের পর প্রতিবেশীর কাঠের বাক্সে স্কুল ছাত্রের মরদেহ।

 

বিজে২৪নিউজ:

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় অপহরণের একদিন পর প্রতিবেশীর ঘরের ভেতর রাখা একটি কাঠের বাক্স থেকে এক স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার ধরমপুর গ্রামের মিশুক আলীর বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।নিহত স্কুলছাত্রের নাম আসিফ হোসেন। সে উপজেলার ওই গ্রামের কুতুব উদ্দীনের ছেলে এবং ধরমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র।

 

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নূর-ই-আলম সিদ্দিকী  জানান, গেল রোববার বেলা ১১টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয় আসিফ। বিকেল হয়ে গেলেও সে বাড়ি না ফিরলে পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে।

 

সন্ধ্যায় আসিফের বাবার কাছে মোবাইল ফোনে মুক্তিপণ বাবদ ৫০ হাজার টাকা চাওয়া হয়। পরে আসিফের বাবা কুতুব উদ্দীন ভেড়ামারা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপরেই আসিফের খোঁজে মাঠে নামে পুলিশ।

 

পরে টেকনোলজি ব্যবহার করে প্রতিবেশী মিশুক আলীর বাড়ি থেকে আসিফের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।পুলিশ সুপার নূর-ই-আলম সিদ্দিকী আরও জানান, মিশুক আলীর বাড়ির একটি ঘরের ভেতরে বড় কাঠের বাক্সের মধ্যে কাথা দিয়ে জড়িয়ে রাখা হয়েছিল আসিফের মরদেহ।

 

গলায় তার দিয়ে পেঁচিয়ে আসিফকে হত্যা করা হয়।ঘটনার পর থেকেই মিশুক ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।