বিএনপি থেকে পদত্যাগ করছেন কণ্ঠশিল্পী মনির খান।

 

বিজে২৪ নিউজ:

 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-৩ (মহেশপুর-কোটচাঁদপুর) আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন কণ্ঠশিল্পী মনির খান। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মনোনয়ন দৌড়ে বাদ পড়েছেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক।

 

চূড়ান্ত তালিকায় দেখা গেছে আসনটি জামায়াতকে ছেড়ে দিয়েছে বিএনপি। এ আসনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন মতিয়ার রহমান, যিনি ঝিনাইদহ জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি।

 

প্রায় ১০ বছর ধরে এলাকায় বিএনপি দলীয় কার্যক্রম ও গণসংযোগ করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী গায়ক মনির খান। দীর্ঘদিন ধরে তিনি এলাকার রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন। রাজনীতিতে সময় দিতে গিয়ে গানের জগতেও অনেকটা অনিয়মিত ছিলেন। এবার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-৩ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন তিনি। প্রাথমিকভাবে দলের মনোনয়নের চিঠি পেয়ে জমাও দিয়েছিলেন। কিন্তু শেষপর্যন্ত দল থেকে মনোনয়ন না পাওয়ার পরই পদত্যাগ করছেন মনির খান।

 

জানা গেছে, মনোনয়ন না পাওয়া ও দলীয় বিশৃঙ্খলাসহ নানা কারণে বিএনপি থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মনির খান। কিছুক্ষনের মধেই জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন তিনি।

 

পদত্যাগের বিষয়টি বিকালে মনির খান নিজেই গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এত অনিয়মের মধ্যে থাকা যায় না। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি দল থেকে পদত্যাগ করবো। কিছুক্ষণের মধ্যে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে জানাচ্ছি।

 

ঠিক কেমন অনিয়ম জানতে চাইলে মনির খান বলেন, আমরা শিল্পীরা আসলে সম্মান চাই। যেটা দল থেকে পাইনি। তাই এই সিদ্ধান্ত।

 

উল্লেখ্য, ঝিনাইদহ-৩ আসনে বিএনপি থেকে কন্ঠশিল্পী মনির খান, আমিরুজ্জামান খান শিমুল, মেহেদী হাসান রুমি ও মতিয়ার রহমানকে প্রাথমিক মনোনয়নপত্র দেওয়া হয়।