ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে ‘বিন্দুবিসর্গ’ সংশ্লিষ্টতাও আমার : বদি

 

অনলাইন ডেস্ক:

 

ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে ‘বিন্দুবিসর্গ’ সংশ্লিষ্টতাও নেই বলে দাবি করেছেন কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদি।

 

শুক্রবার সন্ধ্যায় কক্সবাজারের টেকনাফের সাবরাং ট্যুরিজম পার্ক জিরো পয়েন্টে কক্সবাজার-৪ আসনের নব-নির্বাচিত সংসদ সদস্য শাহীন আক্তারকে দেয়া গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বদি এসব মন্তব্য করেন।

তিনি দাবি করেন, ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত আছি, এটা অভিযোগ করতে পারে কিন্তু কেউ প্রমাণ দিতে পারবে না। কোনো ইয়াবা ব্যবসায়ীর কাছ থেকে একটাকা নেয়া তো দূরে থাক, এককাপ চাও খাইনি।’

 

তিনি বলেন, যারা ইয়াবা ব্যবসা করে কোটি টাকা বানিয়েছে, তারা এখন কোথায়? সরকার প্রধানের নির্দেশ, এই সীমান্তকে (টেকনাফ) ইয়াবামুক্ত করতে হবে। সেজন্য তৎপর রয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণের সুযোগ দিয়েছে সরকার, সবাই তা কাজে লাগান।

 

উপজেলা রেন্ট-এ-কার নোহা মাইক্রোবাস চালক সমবায় সমিতি এ সংবর্ধনার আয়োজন করে। তবে অনুষ্ঠানে নব-নির্বাচিত সংসদ সদস্য বদিপত্নী শাহিন আক্তার উপস্থিত ছিলেন না।

 

অনুষ্ঠানে আগতদের অভিশপ্ত নেশা ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে না জড়ানোর আহ্বান জানিয়ে বদি বলেন, এখনও যারা ইয়াবা ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে, তাদের ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে তথ্য রয়েছে। তারা যেকোনো সময় গ্রেফতার হবে।

 

রেন্ট-এ-কার নোহা মাইক্রোবাস চালক সমবায় সমিতির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ইয়াছিন ইছুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আহমদ, পৌরসভা মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম, সাবেক কাউন্সিলর ফরিদ আহমদ, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বাহাদুর, সোনা আলী, শ্রমিকলীগের নেতা মোহাম্মদ সরোয়ার আলমসহ অনেকে।