কুষ্টিয়ায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২

 

অনলাইন ডেস্ক:

 

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় দুই দল ডাকাত ও পুলিশের মধ্যে ত্রিমুখী বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোর চারটার দিকে আদাবাড়ীয়া- ডাংমড়কা সড়কের পেটকাটা ডহর মাঠে  এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহত ব্যক্তিরা হলেন- উপজেলার গড়ুড়া গ্রামের মছের উদ্দিনের ছেলে মুফাজ্জেল হোসেন ওরফে মুফা (৪২)  ও কৈপাল গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে মাহাবুল হোসেন (৪০)। পুলিশ বলছে দুজনেই ডাকাতদলের সদস্য।  তাদের বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় একাধিক ডাকাতির মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দুটি দেশীয় অস্ত্র (এলজি), চার রাউন্ড গুলি ও একটি রামদা উদ্ধার করেছে।

 

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বিবিসি জার্নালকে বলেন, ভোর চারটার দিকে আদাবাড়ীয়া-ডাংমড়কা সড়কের পেটকাটা ডহর মাঠে দুদল ডাকাতের মধ্যে গোলাগুলি চলছিল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে ডাকাতরা দুদিক থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়।

 

একপর্যায়ে ডাকাত দলের সদস্যরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।ওসি আরও বলেন, এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় দুজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।নিহত মাহাবুল বাবা আব্দুর রহিম বলেন, তার ছেলে বেশ কিছুদিন ধরে বাড়ি থেকে পালিয়ে ছিল। কোনও যোগাযোগ ছিল না।