নেতৃত্ব বিকাশের আদর্শ স্থান বিশ্ববিদ্যালয়: নোবিপ্রবি’র ২য় সমাবর্তনে রাষ্ট্রপতি

 

বিজে২৪নিউজ:

 

আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের প্রতিটি খাতে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ। তিনি বলেন, ‘উন্নয়ন ও অগ্রগতির এ ধারাকে অব্যাহত রাখতে যোগ্য নেতৃত্বের বিকল্প নেই।

 

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি, আর তারই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের অভিষ্ট লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। আর এ নেতৃত্ব বিকাশের আদর্শ স্থান হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়।’

রবিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকালে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মো. আব্দুল হামিদ বলেন, ‘উচ্চ শিক্ষা প্রসারে বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক মেধাবী ও দক্ষ সমাজ গঠনের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠত হয়েছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। এ লক্ষ্য বাস্তবায়নে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে অগ্রাধিকার দিয়ে নতুন নতুন জ্ঞানের ক্ষেত্র ও বিষয়ে কার্যকর, প্রাসঙ্গিক ও ব্যবহারিক পাঠ্যক্রম প্রণয়ন করতে হবে।’

 

এর আগে রাষ্ট্রপতি গ্র্যাজুয়েট এবং পোস্ট-গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে এক শোভাযাত্রায় অংশ নেন। তিনি নবনির্মিত বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হল উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন একুশে পদকপ্রাপ্ত অধ্যাপক ও বিশিষ্ট সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. এম অহিদুজ্জামান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপুমনি বলেন, ‘শিক্ষাক্ষেত্রে মানোন্নয়নের বিষয়কে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার। বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও কর্মমুখী শিক্ষা বিকাশে বিভিন্ন প্রকল্প ও বঙ্গবন্ধু ফেলোশিপ দেওয়া হচ্ছে।’

সমাবর্তনে শিক্ষার্থীদের ১০টি স্বর্ণপদক দেওয়া হয়। এর মধ্যে স্নাতক পর্যায়ের ছয়জনকে চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে চারজনকে ভাইস-চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল দেওয়া হয়। সমাবর্তনে ২ হাজার ২৬৩ জন গ্র্যাজুয়েটকে স্নাতক ডিগ্রি ও ৪৪৫ জনকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি এবং ২১৮ জনকে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিপ্লোমা ডিগ্রি দেওয়া হয়।